Home রাজনীতি উপজেলা নির্বাচন ঘিরে আওয়ামী লীগের ঈদ রাজনীতি

উপজেলা নির্বাচন ঘিরে আওয়ামী লীগের ঈদ রাজনীতি

96
0
SHARE

এবার বেশিরভাগ আওয়ামী লীগ নেতা নিজ নিজ জেলায় ঈদ উদযাপন করেছেন। খুব শিগগিরই দেশের দেশের ৪৮১টি উপজেলা পরিষদে চার ধাপে নির্বাচন হবে। আগামী মাসের ৮ তারিখ হবে প্রথম ধাপের ভোট গ্রহণ। তাই জনগণকে নির্বাচনমুখী করতে ঈদকেন্দ্রিক গণসংযোগ ও শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন তারা।

উপজেলা নির্বাচনে সরকারি দলের সম্ভাব্য প্রার্থীরা ভোটারদের কাছে নিজেকে তুলে ধরতে এবারের ঈদকে বেছে নিয়েছেন। ঈদকে কাজে লাগিয়ে নিজেদের প্রার্থিতার বিষয়টি জানান দেওয়ার পাশাপাশি তাঁরা ভোটারদের আস্থা অর্জনের চেষ্টা চালাচ্ছেন। ঈদের দিন নির্বাচনী এলাকায় গিয়ে ঈদের জামাতে অংশ নেওয়াসহ জনগণের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন তারা।

কুষ্টিয়া জেলার খোকসা ও সদর উপজেলায় প্রথম ধাপে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউর রহমান পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। তিনি কুষ্টিয়া-৩ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফের চাচাতো ভাই। এবারের নির্বাচনেও চেয়ারম্যান পদে লড়বেন আতাউর রহমান। তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, ঈদের সময় নানা শ্রেণি-পেশার মানুষের কাছাকাছি যাওয়ার সুযোগ মেলে। সামনে নির্বাচন। ঈদের সময় হলেও দলের নেতা-কর্মীরা এখন নির্বাচন নিয়েই ব্যস্ত। তবে তাঁর নির্বাচনী এলাকা সদর উপজেলায় দলীয় কোন্দল নেই বলে দাবি করেন তিনি।

মাদারীপুরে সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চাচা-ভাতিজার লড়াইকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা বিভক্ত। ঈদকেন্দ্রিক গণসংযোগেও দুই পক্ষের তৎপরতা ছিল চোখে পড়ার মতো। বৃহস্পতিবার (১২ এপ্রিল) সকালে মাদারীপুরের কেন্দ্রীয় পৌর ঈদগাহ মাঠে জেলার প্রধান জামাতে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও মাদারীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য শাজাহান খান এবং সদর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক পাভেলুর রহমান খান অংশ নেন।

সংসদ সদস্য শাজাহান খানের সঙ্গে ঈদের জামাতে অংশ নেন তাঁর ছেলে ও সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আসিবুর রহমান খান। নামাজ শেষে শাজাহান খান ও তাঁর ছেলে আসিবুর রহমান খান মুসল্লিদের সঙ্গে কোলাকুলির মাধ্যমে দোয়া, ভোট ও সমর্থন চান। একইভাবে শাজাহান খানের চাচাতো ভাই সদর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান পাভেলুর রহমান খানও মুসল্লিদের কাছে ভোট চান।

মাদারীপুর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, আসন্ন উপজেলা নির্বাচন ঘিরে প্রার্থীরা রোজার শুরু থেকেই মাঠে নিজেদের অবস্থান জানান দিয়েছেন। ঈদের দিনেও তাঁরা সাধারণ মানুষের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেছেন। সদর উপজেলায় একই পরিবারে দুই প্রার্থী হলেও তাঁদের দুজনকে ঘিরে দলের নেতাকর্মীরা বিভক্ত হয়ে পড়েছেন।